বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বউ-শাশুড়ির দ্বন্দ্বে হামলা, নিহত ২

বিজ্ঞাপন

অনলাইন ডেস্ক ॥ নেত্রকোনার মদন উপজেলায় স্বামীর বাড়িতে স্ত্রীর স্বজনদের হামলায় দুই প্রতিবেশী নিহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন- রুদ্রশ্রী গ্রামের ইব্রাহিম মিয়ার স্ত্রী মিনারা আক্তার (৫০) ও একই গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে শফিকুল ইসলাম (৬০)।

এ ঘটনায় শরুফা আক্তার (৪৫) নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত শরুফা আক্তার ফতেপুর মড়লপাড়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের স্ত্রী এবং গৃহবধূ মুন্না আক্তারের মা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রুদ্র্শ্রী গ্রামের এলাল উদ্দিনের ছেলে মোবারক হোসেন গত ৩ বছর আগে ফতেপুর মড়লপাড়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে মুন্না আক্তারকে বিয়ে করেন। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মুন্না আক্তার তার শাশুড়ি রিনা আক্তারের সঙ্গে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ঝগড়া করেন। মুন্না বাবার বাড়িতে গিয়ে ঝগড়ার কথা তার পরিবারকে জানান।

বিষয়টি শুনে তার বাবা আব্দুল মান্নান ধারালো অস্ত্র হাতে লোকজন নিয়ে রাত ১০ টার দিকে মেয়ের জামাই মোবারক হোসেনের বাড়িতে হামলা চালান। হামলা ঠেকাতে এগিয়ে এলে প্রতিবেশী মৌলভী শফিকুল ইসলামকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এ সময় তাদের ছুরিকাঘাতে মিনারা আক্তারসহ আরও ৭ জন আহত হন।

বিজ্ঞাপন

পরে আহতদের উদ্ধার করে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শফিকুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল (মমেক) কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সোমবার রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিনারা আক্তার মারা যান।

বিজ্ঞাপন

মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে ছুরিকাঘাতে শফিকুল ইসলাম নিহত হয়েছেন। ওই ঘটনায় আহত মিনারা আক্তার সোমবার রাতে মারা গেছেন।

বিজ্ঞাপন

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শরুফা আক্তার নামের এক নারীকে আটক করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আরইউ/

বিজ্ঞাপন
আরো দেখুন
বিজ্ঞাপন

সম্পর্কিত খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন
Back to top button